শ্রীশ্রীপ্রেমবিবর্ত্ত


৫। বিবর্ত্তবিলাসসেবা

 

প্রেমের বৈচিত্ত্যগতপ্রেমের বিবর্ত্ত যত

মোর মনে নাচে নিরন্তর ।

কলহ গৌরের সনেকরি আমি দিনে দিনে

“কুন্দলে জগাই” নাম মোর ॥১॥
 
গেলাম ব্রজ দেখিবারেরহি সনাতনের ঘরে

কলহ করিনু তার সনে ।

রক্তবস্ত্র সন্ন্যাসীরশিরে বাঁধি’ আইলা ধীর

ভাতের হাঁড়ি মারিতে কৈনু মনে ॥২॥
 
সনাতনের বিনয় দেখেছাড়ি’ তারে এক পাকে

লজ্জায় বসিনু এক ধারে ।

গৌর মোর যত জানেআমায় পাঠায় বৃন্দাবনে

মজা দেখে থাকি’ নিজে দূরে ॥৩॥
 
ভাল তার হউক সুখমোর হউক চির দুঃখ

তার সুখে হবে মোর সুখ ।

আমি কাঁদি রাত্রদিনে গৌরবিচ্ছেদ ভাবি’ মনে

গৌর হাসে দেখি কাঁদা মুখ ॥৪॥
 
সেই ত’ কপটন্যাসীতার লীলা ভালবাসি

মধুমাখা কথাগুলি তার ।

যে ভাব ব্রজেতে ভেবেপুনঃ সেই ভাব এবে

বুঝেও না বুঝি আর বার ॥৫॥
 
চন্দনাদি তৈল আনি’বাঁকা বাঁকা কথা শুনি’

তৈল-ভাণ্ড ভাঙ্গিলাম বলে ।

মান করি’ নিজাসনেশুঞা রৈনু অনশনে

সে মান ভাঙ্গিল নানা ছলে ॥৬॥
 
আমারে করায় পাকঅন্নব্যঞ্জন আবোনা শাক

বলে, “ক্রোধের পাক বড় মিষ্ট” ।

বাড়ায় আমার রোষতাতে তার সন্তোষ

তার প্রসন্নতা মোর ইষ্ট ॥৭॥
 
জিজ্ঞাসিল সনাতনযাইতে কৈনু বৃন্দাবন

তাতে মোরে রাখে বোকা করি’ ।

বাল্য বুদ্ধি দেখি’ তারচিত্তে হয় চমৎকার

আমি তার পাদপদ্ম ধরি’ ॥৮॥
 
বৃন্দাবন যাইতে চাইতাতে আজ্ঞা নাহি পাই

নানা ছল করে মোর সনে ।

যখন কোন্দল হয়নবদ্বীপে যেতে কয়

সেই তার কৃপা জানি মনে ॥৯॥
 
মাতৃ-আজ্ঞা ছল করি’আছেন বৈকুণ্ঠপুরী

নিজ ধাম ছাড়িয়া এখন ।

তাতে পাঠায় নিজপুরেযাহাকে সে কৃপা করে

যেন গোপের গোলোক-দর্শন ॥১০॥
 
এই ভাবে গৌর-সেবাকরি আমি রাত্রদিবা

গৌরগণের এই ত’ স্বভাব ।

গৌর-গদাধর-পদআমার ত’ সম্পদ

দামোদর জানে এই ভাব ॥১১॥
 

 


 

← ৪। গৌরস্য গুরুতা ৬। জীব-গতি →

 

সূচীপত্র:
১। মঙ্গলাচরণ
২। গ্রন্থরচনা
৩। প্রথম প্রণাম
৪। গৌরস্য গুরুতা
৫। বিবর্ত্তবিলাসসেবা
৬। জীব-গতি
৭। সকলের পক্ষে নাম
৮। কুটীনাটি ছাড়
৯। যুক্তবৈরাগ্য
১০। জাতিকুল
১১। নবদ্বীপ-দীপক
১২। বৈষ্ণব-মহিমা
১৩। শ্রীগৌরদর্শনের ব্যাকুলতা
১৪। বিপরীত বিবর্ত্ত
১৫। শ্রীনবদ্বীপে পূর্ব্বাহ্ণ-লীলা
১৬। পীরিতি কিরূপ ?
১৭। ভক্তভেদে আচারভেদ
১৮। শ্রীএকাদশী
১৯। নামরহস্যপটল
২০। নাম-মহিমা
বৃক্ষসম ক্ষমাগুণ করবি সাধন । প্রতিহিংসা ত্যজি আন্যে করবি পালন ॥ জীবন-নির্ব্বাহে আনে উদ্বেগ না দিবে । পর-উপকারে নিজ-সুখ পাসরিবে ॥